SSC Physics Chapter 5 পদার্থবিজ্ঞান নোট

SSC Physics Chapter 5

SSC Physics Chapter 5 পদার্থবিজ্ঞান নোট

SSC Physics Chapter 5
SSC Physics Chapter 5 পদার্থবিজ্ঞান নোট

অধ্যায় পরিচিতি

এসএসসি পদার্থবিজ্ঞান ৫ম অধ্যায়ের নাম পদার্থের অবস্থা ও চাপ (State of Matter and Pressure)। আজকের আমরা এই অধ্যায়টি নিয়ে কথা বলার চেষ্টা করব। SSC Physics Chapter 5 পদার্থবিজ্ঞান নোট

আরো পড়ুন>> SSC Physics শর্ট সিলেবাস এর অধ্যায়গুলোর নাম

কমন উপযোগী জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর

SSC Physics Chapter 5
SSC Physics Chapter 5 পদার্থবিজ্ঞান নোট

>> SSC Physics Chapter 5 পদার্থবিজ্ঞান নোট

>> SSC Physics Chapter 5

এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্ন ও উত্তর

প্রশ্ন ১. প্লবতা কাকে বলে?

উত্তর: তরল বা বায়বীয় পদার্থে আংশিক বা সম্পূর্ণভাবে নিমজ্জিত কোনো বস্তুর উপর তরল বা বায়বীয় পদার্থ লম্বভাবে যে ঊর্ধ্বমুখী বল প্রয়োগ করে তাকে প্লবতা বলে।

 প্রশ্ন ২. বায়ুমন্ডলীয় চাপ কাকে বলে?

উত্তর: বায়ুমন্ডল তার ওজনের জন্য ভূপৃষ্ঠে প্রতি একক ক্ষেত্রফলে যে পরিমাণ বল প্রয়োগ করে তাকে ঐ স্থানের বায়ুমন্ডলীয় চাপ বলে।

প্রশ্ন ৩. পীড়ন কাকে বলে?

উত্তর: বাহ্যিক বলের প্রভাবে কোনো বস্তুর মধ্যে বিকৃতির সৃষ্টি হলে স্থিতিস্থাপকতার জন্য বস্তুর ভিতর একক ক্ষেত্রফলে লম্বভাবে উদ্ভূত প্রতিরোধকারী বলকে পীড়ন বলে। 

প্রশ্ন ৪. চাপ কাকে বলে?

উত্তর: কোনো বস্তুর প্রতি একক ক্ষেত্রফলের উপর লম্বভাবে প্রযুক্ত বলকে চাপ বলে। 

প্রশ্ন ৫. আর্কিমিডিসের সূত্রটি লিখ। 

উত্তর: আর্কিমিডিসের সূত্রটি হলো- বস্তুকে কোনো স্থির তরল অথবা বায়বীয় পদার্থে আংশিক বা সম্পূর্ণ ডুবালে বস্তুটি কিছু ওজন হারায়। এ হারানো ওজন বস্তুটির দ্বারা অপসারিত তরল বা বায়বীয় পদার্থের ওজনের সমান।

আরো পড়ুন>> X-ray বা এক্সরে মেশিন কি? বিস্তারিত তথ্য

প্রশ্ন ৬. ঘনত্ব কাকে বলে?

উত্তর: কোনো বস্তুর একক আয়তনের ভরকে তার উপাদানের ঘনত্ব বলে। 

প্রশ্ন ৭. হুকের সূত্রটি কী?

উত্তর: হুকের সূত্রটি হলো- স্থিতিস্থাপক সীমার মধ্যে পীড়ন বিকৃতির সমানুপাতিক। 

প্রশ্ন ৮. প্যাসকেলের সূত্রটি লিখ।

উত্তর: প্যাসকেলের সূত্রটি হলো- পাত্রে আবদ্ধ তরল বা বায়বীয় পদার্থের কোনো অংশের উপর বাইরে থেকে চাপ প্রয়োগ করলে সেই চাপ কিছুমাত্র না কমে তরল বা বায়বীয় পদার্থের সব দিকে সমানভাবে সঞ্চালিত হয় এবং তরল বা বায়বীয় পদার্থের সংলগ্ন পাত্রের গায়ে লম্বভাবে ক্রিয়া করে। 

প্রশ্ন ৯. বিকৃতি কী?

উত্তর: স্থিতিস্থাপক সীমার মধ্যে বাহ্যিক বল প্রয়োগ করলে কোনো বস্তুর আকার বা আয়তন বা দৈর্ঘের পরিবর্তন ঘটে। একক দৈর্ঘের বা একক আয়তনের এ পরিবর্তনই বিকৃতি। 

প্রশ্ন ১০. প্লাজমা কী?

উত্তর: প্লাজমা পদার্থের চতুর্থ অবস্থা। এটি অতি উচ্চমাত্রার আয়নিক গ্যাস।

আরো পড়ুন>> SSC Chemistry Hand Note Chapter 5 Part 3

শীর্ষস্থানীয় স্কুলসমূহের টেস্ট পরীক্ষার প্রশ্ন ও উত্তর

>> SSC Physics Chapter 5

প্রশ্ন ১১. টরিসেলির শূন্যস্থান কী?

উত্তর: বায়ুর চাপ পরিমাপক যন্ত্র ব্যারোমিটারের কাচনলে যে পারদস্তম্ভ দাঁড়িয়ে থাকে তার উপর হতে নলের বদ্ধ প্রান্ত পর্যন্ত শূন্যস্থানই হলো টরিসেলির শূন্যস্থান। 

প্রশ্ন ১২. দুটি প্রবাহীর নাম লিখ।

উত্তর: দুটি প্রবাহীর নাম হলো- (ক) কেরোসিন, (খ) পানি। 

প্রশ্ন ১৩. সমুদ্র সমতলে বায়ুর সাধারণ চাপ কত?

উত্তর: সমুদ্র সমতলে বায়ুর সাধারন চাপ হলো 76 cm পারদস্তম্ভের চাপের সমান। 

আরো পড়ুন>> Facebook Page সম্পর্কে কিছু তথ্য জানুন

প্রশ্ন ১৪. ঘনত্বের একক কী?

উত্তর: ঘনত্বের একক kgm-3

প্রশ্ন ১৫. প্রবাহীর চাপ কাকে বলে?

উত্তর: কোনো তলে স্থির অবস্থায় থেকে প্রবাহী তার প্রতি একক ক্ষেত্রফলে লম্বভাবে যে বল প্রয়োগ করে তার মানকে প্রবাহীর চাপ বলে।

প্রশ্ন ১৬. ব্যারোমিটার কাকে বলে?

উত্তর: বায়ুর চাপ পরিমাপ করার যন্ত্রকে ব্যারোমিটার বলে। 

আরো পড়ুন>> SSC Higher Math Test Paper (PDF) 2023 দেখে নিন

কমন উপযোগী অনুধাবনমূলক প্রশ্ন ও উত্তর

এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্ন ও উত্তর

>> SSC Physics Chapter 5

প্রশ্ন ১. হাঁড়ি-পাতিল পানিতে ভাসে কেন? ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: হাঁড়ি-পাতিল পানিতে ভাসে। কারণ হাঁড়ি-পাতিলের পদার্থ থাকে খুব পাতলা এবং তলদেশের আয়তন থাকে বেশি। তাছাড়া হাঁড়ি-পাতিলের ভিতরটা থাকে ফাঁপা। এজন্য হাঁড়ি-পাতিল দ্বারা অপসারিত পানির ওজন হাঁড়ি-পাতিলের ওজনের থেকে বেশি হয়। আমরা জানি, বস্তুর ওজন বস্তু দ্বারা অপসারিত পানির ওজনের চেয়ে কম হলে বস্তু পানিতে ভাসে। তাই হাঁড়ি-পাতিল পানিতে ভাসে। 

>> SSC Physics Chapter 5 পদার্থবিজ্ঞান নোট

প্রশ্ন ২. উচ্চতা বৃদ্ধির সাথে বায়ুমন্ডলীয় চাপ হ্রাস পায় কেন? ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: বায়ুমন্ডলীয় চাপ নির্ভর করে বায়ুমন্ডলের উচ্চতা এবং বায়ুর ঘনত্বের উপর। ভুপৃষ্ঠে অর্থাৎ সমুদ্র সমতলে বায়ুর সাধারণ চাপ হলো 76 cm পারদ স্তম্ভের চাপের সমান। ভূপৃষ্ঠের সমুদ্র সমতল থেকে যত উপরে উঠা যায় তত বায়ুস্তম্ভের ওজন এবং ঘনত্ব উভয়ই হ্রাস পায়। এজন্য উচ্চতা বৃদ্ধির সাথে সাথে বায়ুমন্ডলীয় চাপ হ্রাস পায়।

প্রশ্ন ৩. ঘনত্ব বস্তুর তাপমাত্রার উপর নির্ভর করে- ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: বস্তুতে তাপ প্রয়োগ করলে এর অণু পরমাণুসমূহ পরস্পর হতে দূরে সরে যায় বলে এর আয়তন বৃদ্ধি পায়। যেহেতু ভর নির্দিষ্ট থাকে এবং ঘনত্ব হলো ভর ও আয়তনের অনুপাত, তাই তাপমাত্রা বৃদ্ধিতে বস্তুর ঘনত্ব হ্রাস পায়। বিপরীতক্রমে, তাপমাত্রা হ্রাসে বস্তুর আয়তন হ্রাস পায় এবং ঘনত্ব বৃদ্ধি পায়।

প্রশ্ন ৪. বরফ পানিতে ভাসে কেন? ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: যখন বস্তু দ্বারা অপসারিত পানির ওজন বস্তুর ওজনের সমান হয়ে যায় তখন বস্তুটি ভাসতে থাকে। আমরা জানি, পানি বরফে রূপান্তরিত হলে এর আয়তন বৃদ্ধি পায়। কিন্তু ভরের কোনো পরিবর্তন হয় না। ফলে একটি বরফ খন্ড কর্তৃক অপসারিত পানির ওজন অর্থাৎ বরফের সমায়তন পানির ওজন বরফের ওজন অপেক্ষা বেশি। এ কারণে বরফ পানিতে ভাসে। 

আরো পড়ুন>> Bitcoin Mining বা বিটকয়েন মাইনিং কি

প্রশ্ন ৫. টরিসেলির শূন্যস্থান বলতে কী বুঝ?

উত্তর: বায়ুর চাপ পরিমাপ করার ব্যারোমিটার যন্ত্রের কাঁচনলে যে পারদস্তম্ভ দাঁড়িয়ে থাকে তার উপর নলের বদ্ধ প্রান্ত পর্যন্ত শূন্য। এ শূন্যস্থানকে টরিসেলির শূন্যস্থান বলে। প্রকৃতপক্ষে এ শূন্যস্থানে সামান্য পারদ বাষ্প থাকে। 

প্রশ্ন ৬. লোহা পানিতে ডুবলেও পারদে ভাসে কেন? ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: লোহা পানিতে ডুবে যায়, কারণ প্লবতার বা লোহা কর্তৃক অপসারিত পানির ওজন লোহার ওজন অপেক্ষা কম হয়। তাই লোহা পানিতে ডুবে যায়। আবার, পারদে যখন লোহাকে ডুবানো হয় তখন প্লবতা বা লোহা কর্তৃক অপসারিত পারদের ওজন অপেক্ষা লোহার ওজন কম হওয়ায়, লোহা পানিতে ভেসে থাকে। এছাড়াও বলা যায়, পারদের ঘনত্ব লোহার ঘনত্ব অপেক্ষা বেশি, তাই লোহা পারদে ভেসে থাকে। আবার পানি অপেক্ষা লোহার উপাদানের ঘনত্ব বেশি, তাই লোহা পানিতে ডুবে যায়। 

প্রশ্ন ৭. কোনো বস্তু পানিতে ভাসন ও নিমজ্জনের কারণ ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: কোন বস্তুকে কোন তরলে আংশিক বা সম্পূর্ণরূপে নিমজ্জিত করলে বস্তুটির উপর দুইটি বল কাজ করে – যেমনঃ

(১) একটি বস্তুটির ওজন, যা খাড়া নিচের দিকে কাজ করে,

(২) অপরটি তরলের ঊর্ধ্বমুখী বল যা খাড়া উপরের দিকে কাজ করে অর্থাৎ প্লবতা।

বস্তুর ওজন যদি তরলের ঊর্ধ্বমুখী বলের চেয়ে কম হয়, তবে ঊর্ধ্বমুখী বল বস্তুকে উপরের দিকে ঠেলে রাখে। ফলে বস্তু আংশিক নিমজ্জিত অবস্থায় ভেসে থাকে। আর বস্তুর ওজন যদি তরলের উর্ধ্বমুখী বলের চেয়ে বেশি হয়, তবে নিচের দিকে বল বেশি হওয়ায় বস্তু ডুবে যায়। বস্তুর ওজন যদি তরলের উর্ধ্বমুখী বলের সমান হয় তখন বস্তু তরলের উপরে ভাসবেও না, তরলের মধ্যে সম্পূর্ণ ডুবেও যাবে না। সম্পূর্ণ নিমজ্জিত অবস্থায় তরলের যে কোন স্থানে ভাসতে থাকবে।

>> SSC Physics Chapter 5 হ্যান্ড নোট

>> SSC Physics Chapter 5 পদার্থবিজ্ঞান নোট

>> SSC Physics Chapter 5

>> SSC Physics Chapter 5 সাজেশন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *