India Medical Visa পেতে কি কি করা লাগে জানুন

India Medical Visa

India Medical Visa পেতে কি কি করা লাগে জানুন

India Medical Visa
India Medical Visa আবেদন ফর্ম পূরণ। সমস্ত সঠিক তথ্য দিয়ে ফর্মটি পূরণ করার পরে, আবেদনটির একটি প্রিন্ট কপি নেওয়া হয়। নীচে তালিকাভুক্ত সমস্ত নথি সংগ্রহ করা হয়। তারপর, আবেদনকারীকে তার দেশের নিকটবর্তী ভারতের দূতাবাস পরিদর্শন করতে হবে।

ভারত চিকিৎসা ক্ষেত্রে Asia Country এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য এবং নির্ভরযোগ্য একটি গন্তব্য। যেখানে পুরো পৃথিবী থেকেই অনেক Pasient আসে তাদের নিজেদের চিকিৎসা করানোর জন্য। India Medical Visa

ঠিক সেভাবেই আমাদের দেশ থেকেও প্রতি বছর অসখ্য রোগ নিয়ে বিভিন্ন Pasient ভারতে চিকিৎসার জন্য পারি জমাচ্ছেন। তাই আমাদের আজকের প্রতিবেদনটি India Medical Visa নিয়ে।

Exactly আজকের আর্টিকেলে আমি আপনাদের সাথে Shair করতে চলেছি India Medical Visa করতে গেলে আপনাদের কি কি Documents প্রয়োজন পড়বে বা কি কি কাগজ পত্র প্রয়োজন পড়বে।

এই বিষয় গুলো বিস্তারি A to Z আজকের আর্টিকেলে জানানো হবে। তাহলে চলুন বেশি কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক। আজকের আর্টিকেলকে আমি দুটি প্রসঙ্গে বিভক্ত করব। এগুলো হলো-

India Medical Visa
India Medical Visa পেতে কি কি করা লাগে জানুন

Visa Processing করার জন্য কি কি Documents লাগবে।

শুরুতেই আমি কথা বলব ভিসা প্রোসেসিং করার জন্য কি কি ডকুমেন্ট লাগবে সেগুলো সম্পর্কে। নিচে আমি কয়েকটি পয়েন্ট এর মাধ্যমে আপনাদের বোঝার সুবিধার্থে বলে দিচ্ছি।

আরো পড়ুন>> X-ray বা এক্সরে মেশিন কি? বিস্তারিত তথ্য

Valid passport (ভ্যালিড পাসপপার্ট)

ভ্যালিড পাসপপার্ট থাকতে হবে। আর অবশ্যই ৬ মাসেরও বেশি মেয়াদ থাকতে হবে। যদি ভ্যালিড পাসপপার্ট এর মেয়াদ ৬ মাসের নিচে থাকে তাহলে সেই পাসপপার্ট দিয়ে ভিসা Processing করার জন্য এপ্লায় করতে পারবেন না।

আরো পড়ুন>> MRI Machine কী? কিভাবে কাজ করে জানুন

সদ্য তোলা ২ কপি ছবি

বর্তমানে তোলা দুই কপি ছবি প্রয়োজন হবে। আর ছবি গুলোর সাইজ ২/২ হতে হবে এবং সেটার ব্যাকগ্রাইন্ড Definitely সাদা হতে হবে। আর সেই ছবি আপনার কান যেন স্পষ্ট দেখা যায় সেই বিষয়ে লক্ষ রাখবেন।

চশমা বা সানগ্লাস অথবা ক্যাপ পড়ে ছবি তুলবেন না। আর মহিলাদের ক্ষেত্রে মাথায় হিজাব দিয়ে কান ঢেকে ছবি তুলবেন না। এটা আপনার ভিসা Refuse হওয়ার কারণ হতে পারে।

Bank Solvency সার্টিফিকেট

 তিন নাম্বারে রয়েছে ব্যাংক সলভেন্মি সার্টিফিকেটসহ শেষ ৬ মাসের ব্যাংক Statement। Exactly আপনার যে ব্যাংক সলভেন্মি আছে সেটা লাগবে এবং এই সার্টিফিকেটের সাথে আপনার যে লাস্ট ৬ মাসের ব্যাংক স্টেসমেন্ট আছে, সেটা আপনাকে কিন্তু অবশ্যই দেখাতে হবে।

আরো পড়ুন>> Mobile Phone দিয়ে ইউটিউবের ভিডিও ভাইরাল

চাকরিজীবি হলে NOC

আপনি যদি চাকরিজীবি থাকেন তাহলে সেই ক্ষেত্রে আপনার যেই NOC আছে সেটি জমা দিতে হবে। আর আপনি যদি ব্যবসায়ী হয়ে থাকেন তাহলে ট্রেড লাইসেন্স এর নবায়কৃত কপি জমা দিতে হবে।

Visiting Card (ভিজিটিং কার্ড)

আপনি যদি ব্যবসায়ী বা চাকরীজিবী হয়ে থাকেন তাহলে সে ক্ষেত্রে আপনার কিন্তু ভিজিটিং কার্ড দেখাতে হবে। এজন্য ভিজিটিং কার্ড আগে থেকেই তৈরি করে রাখতে পারেন।

পূর্ববর্তী ভারতীয় ভিসার কপি

যদি আপনি এর আগে India ভ্রমন করে থাকেন বা অন্য কোনো কারণে গিয়ে থাকেন অথবা যদি ভারতীয় ভিসা থাকে তাহলে সেক্ষেত্রে সেই ভিসার কপিও কিন্তু আপনাকে জমা দিতে হবে। India Medical Visa

বাচ্চাদের ক্ষেত্রে জন্মনিবন্ধন

বাচ্চাদের জন্য জন্মনিবন্ধন এর কপি জমা দিতে হবে। আর যদি স্টুডেন্ট আইডি কার্ড থাকে তাহলে সেটার কপি জমা দিতে হবে।

স্টুডেন্টদের ক্ষেত্রে

স্টুডেন্টদের জন্য Student আইডি কার্ড অথবা স্কুল, University, Collage থেকে প্রত্যয়নপত্র জমা দিতে হবে। সেই সাথে বাবা মায়ের যে ব্যাংক একাউন্টের স্টেটমেন্ট রয়েছে, যদি বাবার হয় তাহলে বাবার, আর যদি মায়ের হয় তাহলে মায়ের, যাকে দেখাতে চায় তার ব্যাংক স্টেটমেন্টের কপি জমা দিতে হবে।

কারণ স্টুডেন্ট হলে তো তার নিজের একাউন্ট বা আইডি দেখাতে পারবে না। যদি বাচ্চা হয়ে থাকে তাহলে সেক্ষেত্রেও কিন্তু তার পিতা মাতা বা কোনো একজনের ব্যাংক স্টেটমেন্ট দেখাতে হবে।

সেই সাথে বাচ্চার বাবা অথবা ময়ের যে কোনো একজনের প্রফেশনাল প্রফেট ডকুমেন্ট দেখাতে হবে। এটা স্টুডেন্টদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য এবং বাচ্চাদের জন্যও প্রযোজ্য।

জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি

যদি জাতীয় পরিচয় পত্র আপনার থাকে তাহলে সেটা জমা দিতে হবে। আর যদি আপনি অপ্রাপ্ত বয়স্ক হয়ে থাকেন তাহলে জন্মনিবন্ধন জমা দিতে হবে।

ইউটিলিটি বিলের কপি

ইউটিলিটি বিলের কপি জমা দিতে হবে। এটি হতে পারে আপনার বিদ্যুৎ বিল, টেলিফোন বিল অথবা গ্যাস বিল। যে কোনো একটার বিলের কপি জমা দিতে হবে। তবে সাম্প্রতিক সময়ে প্রে করা বিলের কপি দেওয়ার চেষ্টা করবেন।

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন গ্রহণের সনদ

শেষ যেই ডকুমেন্টটি জমা দিতে হবে সেটি হলো আপনি যে কভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন দিয়েছেন সেটার সার্টিফিকেট। 

আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন যে কি কি ডকুমেন্ট প্রয়োজন হয় ভারতীয় মেডিকেল ভিসার জন্য আবেদন করতে। এখন আমি চলে যায় মেডিকেল ভিসা যে আপনি অ্যাপলাই করছেন, এই মেডিকেল ভিসার জন্য Extra যেই কাগজ গুলো লাগবে সেগুলো কি কি?

Significantly মেডিকেল ভিসার জন্য Extra Document গুলো কি কি। 

নিচে আমি Point এর মাধ্যমে মেডিকেল ভিসার জন্য অতিরিক্ত যেই কাগজ গুলো লাগবে সেগুলো দিয়ে দিচ্ছি। আশা করি আপনাদের বুঝতে সুবিধা হবে।

আরো পড়ুন>> নিজেই ইন্ডিয়ান মেডিকেল ভিসা করার নিয়ম

মেডিকেল ইনভাইটেশন লেটার

মেডিকেল ভিসা প্রোসেসিং করতে আপনার সর্বপ্রথম প্রয়োজন পড়বে ইন্ডিয়ান মেডিকেল ইনভাইটেশন লেটার। ইন্ডিয়া থেকে একটি ইনভাইটেশন লেটার অথবা ইন্ডিয়ান ডক্টরের Appointment লেটার, এই দুইটার যে কোনো একটি কিন্তু আপনাকে দেখাতে হবে বা আপনার প্রয়োজন পড়বে।

প্রিভিয়াস মেডিকেল পেপার্স

আপনার যে প্রিভিয়াস মেডিকেল পেপার্স গুলো রয়েছে বাংলাদেশের প্রেসক্রিপশন, সব ধরনের টেস্টের যে রিপর্ট গুলো আছে এই রিপোর্ট গুলো কিন্তু আপনার প্রয়োজন পড়বে। India Medical Visa

ডক্টর এডভাইস লেটার

আপনার যদি বাংলাদেশের অথবা স্থানীয় ডাক্তারের কোনো এডভাইস লেটার যদি থাকে তাহলে সেটা অনেক ভালো। এটাও কিন্তু আপনার প্রয়োজন পড়বে, যদি থাকে তাহলে এটাও ইনপুট করবেন। 

এখন অনেকের প্রশ্ন থাকতে পারে ভিসা প্রোসেসিং করতে কত দিন সময় লাগতে পারেন? অথবা কত দিনের মধ্যে ভিসা হাতে পাবো?

কতদিন লাগতে পারে? 

ভিসা প্রোসেসিং করতে আপনার ১০ থেকে ১৫ কর্মদিবস পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। এর থেকে কম সময়েও হয়ে যায় তবে এটা সর্বউচ্চ সময়টা বল্লাম। 

আরো পড়ুন>> বর্তমানে আমাদের ভিসা অফারসমূহ

শেষ কথা

এই হলো আমাদের আজকের প্রতিবেদন India Medical Visa কিভাবে তৈরি করবেন সেই সম্পর্কে। আশা করি আপনি এই আর্টিকেল থেকে কিভাবে ইন্ডিয়ান মেডিকেল ভিসা প্রোসেসিং করতে এবং কত দিন সময় লাগে এই সময়র্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে পেরেছেন। আপনার মূল্যবান সময় ব্যায় করে প্রতিদেনটি দেখার জন্য অনেক ধন্যবাদ। 

>> India Medical Visa

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *